3:06 pm - Saturday September 26, 1153

মেয়েরা যে কোনও সময় প্রেগন্যান্ট হয়ে পড়ে, আমারও ভয় ছিল- কঙ্গনা

হৃতিক রোশান-কঙ্গনা রানাওয়াতের লড়াই দিন কয়েক আগেও শিরোনামে ছিল। এরপর আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছিল তাঁদের ঝগড়া। ফের সেই ইস্যু নিয়ে মুখ খুললেন এবার কঙ্গনা। এ বার আরও আক্রমণাত্মক মেজাজে তিনি। সম্প্রতি নিউজ এইটিনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সরাসরি হৃতিককে ক্ষমা চাওয়ার কথা বললেন তিনি।

তার দাবি, তাঁদের সম্পর্কে যা ঘটেছিল, সে বিষয়ে তাঁর আরও অনেক কিছু বলা বাকি। হৃতিকের সঙ্গে ঝামেলার সময় ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই তাঁকে বলেন, ক্ষমা না চাইলে কঙ্গনাকে জেলের ভিতরেও দিন কাটাতে হতে পারে।’কঙ্গনা বলেন, ‘আমি ভয় পেয়েছিলাম। কত কিছু ঘটছে আমাদের চারপাশে। ওই মালয়ালাম অভিনেত্রীর সঙ্গে কী হল। ওই অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে সেই ভিডিও ভাইরাল পর্যন্ত করে দেওয়া হয়েছে। কারণ ওই অভিনেত্রী অভিযুক্ত ব্যক্তির স্ত্রীর কাছে তাঁর কীর্তিকলাপ সম্পর্কে জানিয়ে দিয়েছিলেন। যদিও সেটা আমার ঘটনার পরে ঘটেছিল। তবে কিছু তো বলা যায় না। মেয়েরা যে কোনও সময় প্রেগন্যান্ট হয়ে পড়ে, আমারও ভয় ছিল।’

 

এছাড়াও হৃতিকের বিরুদ্ধে তাঁর ইমেল হ্যাক করারও অভিযোগ এনেছেন নায়িকা। কঙ্গনার কথায়-‘হৃতিক আমার ইমেলের পাসওয়ার্ড জানত। ও সেটা থেকে নিজেই প্রচুর মেইল পাঠিয়েছিল। পরে সেগুলোই আমি ওকে পাঠিয়েছি বলে প্রকাশ্যে নিয়ে আসে। সে সময় ওর বাবাকে গোটা ব্যাপারটা জানিয়ে আমি সাহায্য চেয়েছিলাম। উনি সাহায্য করবেন বলেছিলেন। কিন্তু উনি কথা রাখেননি।’

এছাড়াও ওই সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন, তিনি কোনও দিন কোনও অবস্থাতেই হৃতিকের কাছে ক্ষমা চাইবেন না। বরং হৃতিকেরই তাঁর কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত। কঙ্গনা দাবি করেন, ‘আমি তো ওর মুখোমুখি হতে চাইছি। ও আমাকে এড়িয়ে যাচ্ছে।’

সে সময় হৃতিক ও তাঁর বাবা রাকেশ রোশন কঙ্গনার বিরুদ্ধে অনেক কিছু দাবি করলেও সে সব কিছু তাঁরা প্রমাণ করতে পারেননি। কিন্তু এর ফলে কঙ্গনার পেশাদার ও ব্যক্তিগত জীবন ধাক্কা খেয়েছিল বলে দাবি করেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

সূত্র: আনন্দবাজার

Filed in: জানতে চাই
[X]