পাকিস্তানের সাথে খেলতেই হবে ভারতকে

রাজনৈতিক বৈরিতার জেরে পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলছে না ভারত। এতে বড় ধরনের আর্থিক লোকসানের সম্মুক্ষীণ হচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তাই চিরশত্রুদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতে বরাবরই আগ্রহ জানিয়ে আসছে পাকিস্তান। তবু রাজি হচ্ছে না ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)।

এ নিয়ে আইসিসি সমস্যা সমাধান কমিটিতে মামলা করেছে পাকিস্তান। বিষয়টি নাকি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখভাল করছে এ কমিটি। জানালেন পিসিবি চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি।

কলকাতায় সদ্য সমাপ্ত আইসিসির বৈঠক শেষ করে পাকিস্তানে ফিরে গেছেন শেঠি। দেশে ফিরেই এ চাঞ্চল্যকর তথ্য জানালেন তিনি।

পিসিবি চেয়ারম্যান বলেন, দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে খতিয়ে দেখছে আইসিসির সমস্যা সমাধান কমিটি। এ নিয়ে তাদের দেয়া যে কোনো সিদ্ধান্ত আমরা মেনে নেব। তবে আমাদের পক্ষে যদি রায় আসে, তা হলে ২০১৯-২০২৩ সালের সফরসূচিতে পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ রাখতে হবে ভারতকে। এক্ষেত্রে সেই সিরিজ অবশ্যই খেলতে হবে।

রোববার করাচিতে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আগামী অক্টোবরে ভারত-পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে এ কমিটি। আমাদের পক্ষে ফল এলে ভারতকে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতেই হবে।

পাকিস্তান বোর্ড জানিয়েছে, ২০১৪ সালে পাকিস্তানের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক সই করে ভারত। সেই অনুযায়ী, ২০১৫-২৩ মেয়াদে দুই দেশের মধ্যে ৬টি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে কয়েকটি সিরিজ খেলা হয়নি। এতে আমাদের ৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছে। সেই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

অবশ্য আইসিসিকে ভারতীয় বোর্ড জানিয়েছে, দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে কোনো সমঝোতা হয়নি। এ তথ্য ঠিক নয়। পাকিস্তান বোর্ডের সঙ্গে মৌখিক আলোচনা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকার এ ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিলেই তাদের সঙ্গে সিরিজ আয়োজন সম্ভব।

নাজাম শেঠি দাবি করেন, ২০১৪ সালে দুই বোর্ডের মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই হয়। তা অনুযায়ী, ২০১৫-২৩ সালের মধ্যে ৬টি সিরিজ খেলার কথা চূড়ান্ত হয়। এখন ভারত তা অস্বীকার করলেও আইনি কাগজপত্র পেশ করা হয়েছে। আইনি লড়াইয়ে জিতলে ক্ষতিপূরণ পাবই।

পরিচালকের গোপন কথা জানতে পেরে শুটিং রেখে পালিয়ে যান মাহি!

পরিচালক অনন্য মামুনের বিরুদ্ধে গুরুতর প্রতারণার অভিযোগ তুলেছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সিনেমার গানের কথা বলে মিউজিক ভিডিওর শুটিং করানোর অভিযোগে শুটিং অসমাপ্ত রেখেই পালিয়ে যান এই নায়িকা।

জানা গেছে, বলা হয়েছিল চলচ্চিত্র কিন্তু নায়িকা শুটিং স্পটে দিনের অর্ধেক কাজ করার পর বুঝতে পারলেন এটা হচ্ছে মিউজিক ভিডিও। তারপর যা হওয়ার তাই হলো। আর এই পুরো ঘটনাটা ঘটেছে মাহিয়া মাহির সাথে। বলা হয়েছিল, এটা অনন্য মামুনের ‘তুই শুধু আমার’ ছবির কাজও । এ ছবিতে তার বিপরীতে রয়েছেন ওপার বাংলার সোহম ও ওম।

এই সিনেমার গানের শুটিংয়ের কথা বলে মাহির সিডিউল নেন পরিচালক। কিন্তু পরে দেখা যায় সিনেমার গানের কথা বলে মাহিকে দিয়ে মিউজিক ভিডিওর কাজ করানো শুরু করেছিলেন পরিচালক। বিষয়টি যখন মাহি বুঝতে পারেন তখনই সঙ্গে সঙ্গে শুটিং স্থল ত্যাগ করেন। পরে মাহি আর কাজটি করেননি।
মাহিয়া মাহি

এ প্রসঙ্গে মাহি বলেন, ‘আমাকে সিনেমার গানের শুটিংয়ের কথা বললে আমি সিডিউল দেই। প্রায় গানের অর্ধেক কাজ শেষ হওয়ার পর আমি জানতে পারি এটা সিনেমার গান নয়। আমাকে দিয়ে মিউজিক ভিডিও বানানো হচ্ছে। এরপর আর কাজটি করিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরিচালকের এমন মিথ্যাচার আমার খারাপ লেগেছে। তিনি অন্যায় করেছেন।’ পরিচালক অনন্য মামুন এ বিষয়ে বলেন, ‘পুরো ব্যাপারটাই ভুল বোঝাবুঝি। মাহির সঙ্গে আমি কথা বলব এই নিয়ে। সবকিছু মিটে যাবে শিগগিরই।’

তবে গানটির প্রযোজক ইয়াসির আরাফাত বলেন, ‘অনন্য মামুনের সঙ্গে গানের মিউজিক ভিডিওর কথা হয়। সে আমাকে বলে এটা মাহিকে দিয়ে শুট করাবে। এরকম ঝামেলা হবে আশা করিনি। নাহলে আমি নিজেই মাহির সঙ্গে কথা বলতাম।’

পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্প বাস্তবায়নে চীনের সঙ্গে ২৭৬ কোটি ডলারের চুক্তি সই

বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্প বাস্তবায়নে চীনের এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে ২৭৬ কোটি ডলারের ঋণচুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ।

শুক্রবার সকালে বেইজিংয়ে বাংলাদেশের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জাহিদুল হক ও চায়না এক্সিম ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট সুন পিং এই চুক্তিতে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়।

রেলসংযোগ প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সিআরইসি কর্মকর্তা এবং চীনে বাংলাদেশ হাই কমিশনের ইকনোমিক কাউন্সিলর মো. জাহাঙ্গীর উপস্থিত এসময় উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি স্বাক্ষর উপলক্ষে জাহিদুল হকের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল এখন চীনে অবস্থান করছে।

ঢাকা থেকে পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে ভাঙ্গা, নড়াইল হয়ে যশোর পর্যন্ত ১৭২ কিলোমিটার রেল সংযোগ প্রকল্পে অর্থায়নে ২০১৬ সালে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ঢাকা সফরের সময় যে ২৭টি প্রকল্পে অর্থায়নে সমঝোতা চুক্তি হয়, এটি তার একটি।

প্রকল্পটির মোট ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৩৫ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে ১০ হাজার কোটি টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে যোগান দেওয়ার কথা। বাকিটা ২৫ হাজার কোটি টাকা (৩১৩ কোটি ৮৭ লাখ ডলার) চীন সরকারের ঋণ দেওয়ার কথা ছিল।

তবে প্রকল্পে চীনা অর্থায়নের পরিমাণ যে কমে যাচ্ছে, তা মার্চের মাঝামাঝি সময়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন।

তিনি জানান, এ প্রকল্পের জন্য চীন তার প্রতিশ্রুত অর্থায়নের পরিমাণের চেয়ে ১৫ শতাংশ অর্থ কম দেবে।

তবে শেষ পর্যন্ত চীনের এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে ২৭৬ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি হয়েছে। এই সংখ্যা পূর্বের প্রতিশ্রুত অর্থের চেয়ে ১২ দশমিক ০৬ শতাংশ কম।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সড়ক সেতু চালুর দিন থেকেই রেল চলাচলও উদ্বোধনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ওই ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে রেল মন্ত্রণালয় ২০১৬ সালের ২৩ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি চিঠি পাঠায়।

তাতে বলা হয়, ২০১৯ সালে পদ্মায় রেল সেতু উদ্বোধন করতে হলে ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে কাজ শুরু করতে হবে।

তাতে আরও বলা হয়েছিল, মে-জুন মাস থেকে বাংলাদেশে বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ায় জানুয়ারি মাস থেকে কাজ শুরু করতে হবে। না হলে পদ্মা সড়ক ও রেল সেতু এক সাথে উদ্বোধন করা সম্ভবপর হবে না।

২০১৮ সালের মধ্যে পদ্মা সেতুর মূল কাজ শেষ করার লক্ষ্য ঠিক করে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। সরকারের এই মেয়াদে অর্থাৎ এই বছরের মধ্যে পদ্মা সেতুতে গাড়ি পারাপারের আশা প্রকাশ করছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

কিন্তু সড়ক সেতুর কাজ এগিয়ে পদ্মা সেতুতে এখন তৃতীয় স্প্যান বসলেও পিছিয়ে পড়েছে রেল প্রকল্পের কাজ।

সর্বশেষ সংশোধনী অনুযায়ী পদ্মা সেতু প্রকল্প বাস্তবায়নের মেয়াদ দুই বছর বাড়িয়ে ২০২০ সালের মধ্যে শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

এরই মধ্যে রেলের চুক্তি না হওয়ায় এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে গত ২৭ ডিসেম্বর ইআরডির কাছে চিঠি পাঠিয়ে চীনা কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়ে দ্রুত চুক্তি স্বাক্ষরের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

রমজানের আগে উল্টো কমছে ছোলার দাম !

রমজানে ভোগ্য পণ্যের মধ্যে সবচেয়ে বেশি চাহিদা থাকে ছোলার। আমদানির সঙ্গে চাহিদার সামান্য হেরফের হলেই অস্থির হয়ে ওঠে বাজার। বিগত রমজানে শবেবরাতের পর প্রথম ১০ দিন বাজারে অস্থিরতা ছিল। পরে চাহিদা না থাকায় বেশির ভাগ ছোলাই অবিক্রীত থেকে গিয়েছিল। অবিক্রীত সেই ছোলা এবার রমজানে বিক্রি হবে। এর সঙ্গে চলতি অর্থবছরেই আমদানি হয়েছে আরো বিপুল পরিমাণ ছোলা।

চট্টগ্রাম বন্দর ও কাস্টমসের আমদানির তথ্য বলছে, ২০১৬-১৭ অর্থবছরের ১২ মাসে আমদানি হয়েছিল এক লাখ ৬৯ হাজার টন ছোলা। এবার ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত নয় মাসেই আমদানি হয়েছে এক লাখ ২২ হাজার টন; অর্থবছরের বাকি এখনো তিন মাস। ফলে চাহিদার অতিরিক্ত ছোলা আমদানি হবে নিশ্চিত।

আমদানির উক্ত চিত্রই বলছে, বিগত অর্থবছরের চেয়ে অনেক বেশি ছোলা এবার আমদানি হয়েছে। এটি শুধু চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ছোলা আমদানির তথ্য; এর বাইরে টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে মিয়ানমার থেকেও প্রচুর ছোলা আমদানি হচ্ছে।

এর পরও রমজানে বাজার কেমন হবে? জানতে চাইলে ছোলার আমদানিকারক ও বিএসএম গ্রুপের চেয়ারম্যান আবুল বশর চৌধুরী বলেন, ‘বন্দরে জাহাজজট ঝুঁকি এড়াতে এবং আন্তর্জাতিক বাজারে রমজানের ভোগ্য পণ্যের দাম যথেষ্ট সহনীয় থাকায় আগেভাগেই পণ্য আমদানি শুরু করি। এর মধ্যে বেশ কিছু পণ্য গুদামে পৌঁছে বাজারে বিক্রি হচ্ছে। এবার যে পরিমাণ রমজানের পণ্য আমদানি হয়েছে এবং সরবরাহ পরিস্থিতি এভাবে থাকলে তাতে ছোলা কেজিতে গত বছরের চেয়ে ২০ থেকে ২৫ টাকা কম থাকবে। আর বিভিন্ন ধরনের ডালও ১০ থেকে ২০ টাকা কম থাকবে। ফলে রমজানে দাম বাড়ার কোনো কারণ দেখছি না।’

জানা গেছে, ট্যারিফ কমিশন ও সরকারি হিসাবে প্রতি মাসে ছোলার চাহিদা ১২ হাজার টন হলেও রমজান মাসে এর চাহিদা বেড়ে এক মাসেই ৫০ হাজার টনে উন্নীত হয়। চলতি ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে মার্চে ১ লাখ ছয় হাজার টন ছোলা আমদানি হয়েছে। ২০১৭ সালে একই সময়ে আমদানি হয়েছিল মাত্র ৫৬ হাজার টন। ছোলার চাহিদার তুলনায় আমদানি বেশি হলেও রমজানের শুরুতে ক্রেতাদের একসঙ্গে কেনার প্রতিযোগিতার কারণেই বাজারে অস্থিরতা তৈরি হয়। এই সুযোগে পাইকারি ও খুচরা দুই ব্যবসায়ীরাই দাম বাড়িয়ে মুনাফা আদায় করে।

গত মার্চের শেষ দিকে খাতুনগঞ্জে প্রতি মণ অস্ট্রেলিয়ার ছোলা বিক্রি হচ্ছে দুই হাজার ২৫০ টাকায়, কেজিপ্রতি দাম ৬০ টাকায়। গতকাল বিক্রি হয়েছে মানভেদে কেজি এক হাজার ৯০০ থেকে দুই হাজার টাকায়। ফলে এক সপ্তাহ আগের চেয়ে দাম এখন কম। বিগত রমজানের প্রথম সপ্তাহে ছোলা বিক্রি হয়েছিল ৭০ থেকে ৮৫ টাকায়!

খাতুনগঞ্জের ছোলার আড়তদার পায়েল ট্রেডার্সের কর্ণধার আশুতোষ মহাজন বলেন, ‘পাইকারি বাজারে বেচাকেনা নেই, দামও কম। আড়তে পাইকারিতে মণপ্রতি বিক্রি হচ্ছে এক হাজার ৮৭০ টাকায় অর্থাৎ কেজিতে ৫০ টাকার মতো। ভালোমানের অস্ট্রেলিয়ার ছোলা এক হাজার ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এক সপ্তাহ আগে দাম আরেকটু বেশি ছিল। রমজান পর্যন্ত বাজার এমনটাই থাকবে, বরং দাম আরো কমবে।’

ব্যবসায়ীরা বলছে, খাতুনগঞ্জের পাইকারিতে রমজানের ভোগ্য পণ্য বিক্রি শুরু হয় মূলত শবেবরাতের পর। অর্থাৎ ১ মে থেকে অন্তত ১০ দিন চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের ব্যবসায়ীরা পাইকারের কাছ থেকে পণ্য কিনে খুচরা বাজারে নিয়ে যাবে। রমজান শুরুর দু-এক দিন আগে থেকে ১০ রমজান পর্যন্ত সেগুলো বিক্রি করবে। ফলে বাজারে দাম কেমন হবে তা সেই সময়ের ওপর নির্ভর করছে।

চট্টগ্রাম ডাল মিল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এস এম মহিউদ্দিন বলেন, ‘আমদানি মূল্যের চেয়ে মণপ্রতি ১০০ থেকে ১৫০ টাকা কম দামে এখন অস্ট্রেলিয়ার ছোলা বিক্রি হচ্ছে। আমদানি মূল্য খরচসহ দুই হাজার ২০০ থেকে দুই হাজার ১৫০ টাকা হলেও বাজারে বিক্রি হচ্ছে মানভেদে এক হাজার ৯০০ থেকে দুই হাজার টাকায়। আর বাজারে থাকা মিয়ানমারের ছোলা বিক্রি হচ্ছে ২৫শ টাকা মণ। কিন্তু সেগুলোর চাহিদা কম।’

তিনি মনে বলেন, ‘আগের বছরের ছোলা অবিক্রীত রয়ে গেছে, সেই সঙ্গে এবার আমদানীকৃত ছোলার মান ও রং ভালো হয়নি। এ কারণে প্রতিযোগিতা দিয়ে দাম কমে বিক্রি হচ্ছে। আমার মনে হয় না রমজানেও ছোলার দাম বেশি হবে।’

অন্যায়টা হয়েছে ফাতেমার সঙ্গে : প্রধানমন্ত্রী

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সাজা সম্পূর্ণ আদালতের বিষয়, এখানে আমাদের কিছু করার নেই বলে আবারো জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী সরকারি বাসভবন গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন একথা বলেন তিনি।

এ প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি তো তাকে জেলে দেইনি। আমি যদি তাকে জেলে দিতাম তাহলে সেই ২০১৫ সালে যখন মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করলো তখনই দিতে পারতাম। কিন্তু তা আমরা করিনি।

তিনি আরও বলেন, ২০১৫ সালে ৬৮জন লোক নিয়ে খালেদা জিয়া নিজেই নিজেকে একটি ঘরে মধ্যে অবদ্ধ করে রাখলেন। সেখান থেকে নির্দেশ দিয়ে একের পর এক মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করলেন।

এমনকি তার ছেলে মারা গেলো, আমি গেলাম তাকে সমবেদনা জানাতে। উল্টো আমাকে মুখে উপর দরজা বন্ধ করে দেয়া হলো। তখন কী করা উচিত ছিলো, উচিত ছিলো বাইরে থেকে তালা বন্ধ করে দেয়া। যাতে কেউ আর বের হতে না পারে।

তিনি বলেন, আমি চাইলে তা পারতাম, কিন্তু করিনি। আমি রাজনৈতিকভাবে কিছু করতে চাইনি বলেই করিনি।

তবে একটা অন্যায়কে প্রশ্রয় দিয়েছি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অন্যায় কোনটা জানেন? ফাতেমার বিষয়টা। একজন অপরাধীর (খালেদা জিয়া) সঙ্গে নিরপরাধ ফাতেমাকেও কারাগারে কাটাতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, পৃথিবীর কোন দেশে আছে, একজন সাজাপ্রাপ্ত অপরাধীর সঙ্গে সহকারী দেয়া হয়?

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনে বয়সসীমা এবং ছাত্রত্ব আছে কিনা তা দেখা হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছাত্রলীগের আসন্ন জাতীয় সম্মেলনে নতুন নেতৃত্ব বাছাইয়ের পদ্ধতি সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেভাবে হওয়ার সেভাবেই হবে। ইতোমধ্যে কে কে প্রার্থী তাদের তালিকা নেওয়া হয়েছে। ছাত্রলীগের নেতা নির্বাচনের পদ্ধতি আছে। তালিকায়ে আসা আগ্রহীদের ডেকে সমঝোতার চেষ্টা করা হয়। হলে এই কমিটির প্রেস রিলিজ দেওয়া হবে। এতে সফল না হলে স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সের মাধ্যমে ভোট হবে। তবে ভোটের মাধ্যমে হওয়ারও একটা ঝামেলা আছে। তারা ইয়াং ছেলেপুলে, ভোটের মধ্যে অনেক কিছুই হতে পারে। তারা প্রভাবিত হতে পারে। তবে আমরা দেখবো যদি ভোটের মধ্যে যোগ্য নেতৃত্ব এসেছে কিনা। না এলে তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আপনারা জানেন, ছাত্রলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনে একটা উপযুক্ত বয়সসীমা রয়েছে, তাদের ছাত্র হতে হবে। এদের মধ্য থেকেই নতুন নেতৃত্ব বেছে নেওয়া হবে।

খুলনায় নির্বাচনী প্রচার স্থগিত ঘোষণা করেছেন বিএনপি প্রার্থী

নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে খুলনা সিটি কর্পোরেশন-কেসিসি নির্বাচনে সব ধরনের প্রচার কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেছেন বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

তবে প্রচার বন্ধ করলেও বিএনপি নির্বাচনী মাঠ থেকে সরবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় মহানগরীর মিয়াপাড়া রোডের বাসভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, বুধবার রাত ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা পর্যন্ত নগরীজুড়ে পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশে (ডিবি) সদস্যরা ধানের শীষের নির্বাচনী প্রচারে জড়িত বিভিন্ন পর্যায়ের ১৯ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছেন। এ ছাড়া অসংখ্য নেতাকর্মীর বাড়িতে তল্লাশির নামে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছে।

মঞ্জু অভিযোগ করে বলেন, তার নেতাকর্মীদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও দুর্ব্যবহার করা হয়েছে। নির্বাচনের কাজে যুক্ত থাকলে পরিণতি হবে ভয়াবহ বলেও ডিবি হুমকি দিয়েছে।

এ পরিস্থিতিতে গণগ্রেফতার বন্ধ ও গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি দেয়া পর্যন্ত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিএনপির নির্বাচনী কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে ঘোষণা দেন তিনি।

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির থাকার সুযোগ নেই

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ নেই জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সংসদের বাইরে থাকা কোনো দলের সেখানে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ নেই।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে একথা জানান তিনি।

বিএনপি আলোচনার মাধ্যমে টেকনোক্র্যাট কোটায় নির্বাচনকালীন সরকারের মন্ত্রিসভায় থাকতে চায়- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ওবায়দুল কাদের বলেন, গতবার শুধু সরকারে অংশগ্রহণ নয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ও বিএনপিকে অফার করা হয়েছিল প্রকাশ্যে। এখানে গোপনীয়তার কিছু ছিল না। সেটা পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্বকারী দল হিসেবে। পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্বকারী দল নয় এমন কাউকে সরকারে এবার আমন্ত্রণ জানানো হবে এমন কোনো চিন্তা-ভাবনা সরকারের নেই।

বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিলে নির্বাচনী ট্রেন থেমে থাকবে না বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

সস্তায় বাজারে এলো টিভিএসের নতুন স্মার্ট স্কুটার, জেনে নিন দামসহ বিস্তারিত !!

নতুন স্কুটার আনলো টিভিএস। মডেল টিভিএ এনটর্ক ১২৫। ছয়টি রঙে স্কুটারটি ভারতের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। দাম ৫৮ হাজার ৭৫০ রুপি।এনটর্ক অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত স্কুটার। এতে স্মার্টকানেক্ট ফিচার যোগ করেছে টিভিএস। এছাড়াও রয়েছে ব্লুটুথ কানেকটিভিটি।অ্যাপের মাধ্যমে ফোনটিকে স্কুটারটির সঙ্গে কানেক্ট করা যাবে।স্কুটারটিতে সম্পূর্ণ ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ব্যবহার করা হয়েছে।বিশেষ ফিচার হিসেবে এতে রয়েছে নেভিগেশন অ্যাসিস্ট, কলার আইডি এবং অ্যাপ ভিত্তিক পার্কিং লোকেশেন অ্যাসিস্ট। এর ডিসপ্লে তিনটি মোডে ব্যবহার করা যাবে। এগুলো হলো- স্টিট, স্পোট এবং রাইড স্টাটস।

১২৫ সিসির টিভিএস বাইকটিতে সিভিটিআই-রেভ ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। ইঞ্জিনের ক্ষমতা ৯.৫ হর্স পাওয়ার, টর্ক ১০.৫এনএম। এর ওজন ১১৬ কেজি।

নতুন স্কুটার আনলো টিভিএস। মডেল টিভিএ এনটর্ক ১২৫। ছয়টি রঙে স্কুটারটি ভারতের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। দাম ৫৮ হাজার ৭৫০ রুপি।এনটর্ক অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত স্কুটার। এতে স্মার্টকানেক্ট ফিচার যোগ করেছে টিভিএস। এছাড়াও রয়েছে ব্লুটুথ কানেকটিভিটি।অ্যাপের মাধ্যমে ফোনটিকে স্কুটারটির সঙ্গে কানেক্ট করা যাবে।স্কুটারটিতে সম্পূর্ণ ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ব্যবহার করা হয়েছে।বিশেষ ফিচার হিসেবে এতে রয়েছে নেভিগেশন অ্যাসিস্ট, কলার আইডি এবং অ্যাপ ভিত্তিক পার্কিং লোকেশেন অ্যাসিস্ট। এর ডিসপ্লে তিনটি মোডে ব্যবহার করা যাবে। এগুলো হলো- স্টিট, স্পোট এবং রাইড স্টাটস।

নতুন স্কুটার আনলো টিভিএস। মডেল টিভিএ এনটর্ক ১২৫। ছয়টি রঙে স্কুটারটি ভারতের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। দাম ৫৮ হাজার ৭৫০ রুপি।এনটর্ক অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত স্কুটার। এতে স্মার্টকানেক্ট ফিচার যোগ করেছে টিভিএস। এছাড়াও রয়েছে ব্লুটুথ কানেকটিভিটি।অ্যাপের মাধ্যমে ফোনটিকে স্কুটারটির সঙ্গে কানেক্ট করা যাবে।স্কুটারটিতে সম্পূর্ণ ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ব্যবহার করা হয়েছে।বিশেষ ফিচার হিসেবে এতে রয়েছে নেভিগেশন অ্যাসিস্ট, কলার আইডি এবং অ্যাপ ভিত্তিক পার্কিং লোকেশেন অ্যাসিস্ট। এর ডিসপ্লে তিনটি মোডে ব্যবহার করা যাবে। এগুলো হলো- স্টিট, স্পোট এবং রাইড স্টাটস।

রাতে মোবাইল পাশে নিয়ে ঘুমালে ভয়ঙ্কর ক্ষতি হতে পারে !

রাতে মোবাইল পাশে – আপনি কি রাতে মোবাইল ফোন চালু রেখে মাথার কাছে রাখছেন তাহলে সাবধান। যতই জরুরি ফোন কল আসার কথা থাকু না কেন এটা কখনও করবেন না। হয় ফোন বন্ধ করে কাছে রাখুন, না হয় দূরে কোথাও রাখুন।চালু মোবাইলের ওয়াইফাই বিকিরণ ভয়ঙ্কর ক্ষতি করে দেবে।উত্তর জাটল্যান্ডের নবম শ্রেণির একদল ছাত্রছাত্রী বিভিন্ন রকমের শাকের বীজ নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করে দেখেছে, চালু মোবাইলের ওয়াইফাই বিকিরণ প্রাণের পক্ষে চরম ক্ষতিকারক। তা মৃত্যুও ডেকে আনতে পারে। পরীক্ষার ফলাফলে যথেষ্টই উৎসাহিত ইংল্যান্ড, হল্যান্ড ও সুইডেনের গবেষকরা। এ ব্যাপারে আরও গবেষণা চালাতে চেয়েছেন স্টকহলমের ক্যারোলিনস্কা ইনস্টিটিউটের বিশিষ্ট গবেষক ওলে জোহানসন। তিনি

বেলজিয়ান অধ্যাপক মারি-ক্লেয়ার কামার্তকে সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষাটা আবার করতে চেয়েছেন।পরীক্ষাটা যারা চালিয়েছে সেই ছাত্রছাত্রীদের অন্যতম লি নিয়েলসন জানিয়েছেন, ৪০০ রকমের শাকের বীজের ওপর তাঁরা পরীক্ষাটা চালিয়েছেন। দু’টি আলাদা ঘরে একই তাপমাত্রায় ৬টি ট্রেতে ওই শাকের বীজগুলিকে রাখা হয়েছিল। ১২ দিন ধরে ওই দু’টি ঘরে রাখা শাকের বীজগুলিকে সম পরিমাণ জল আর সূর্যালোক দেওয়া হয়েছিল তাদের বেড়ে ওঠার জন্য। তাদের মধ্যে শাকের বীজ রাখা রয়েছে এমন ৬টি ট্রে’কে রাখা হয়েছিল দু’টি ওয়াইফাই রাউটারের কাছাকাছি। সাধারণ মোবাইল ফোন থেকে যতটা বিকিরণ আসে, ওই ওয়াইফাই রাউটারগুলি থেকে বিকিরণ আসে ততটাই।
জনপ্রিয় পোস্ট সমূহ

যে ১৩ কারণে পেটের বাম পাশে ব্যথা হয়১২ দিন পর দেখা গেল, ওয়াইফাই রাউটারের কাছে রাখা শাকের বীজগুলি মোটেই বাড়েনি। তাদের বেশির ভাগই হয় শুকিয়ে গিয়েছে বা মরে গিয়েছে। আর যে শাকের বীজ ভরা ট্রে’গুলির ধারে কাছে কোনও ওয়াইফাই রাউটার ছিল না, সেগুলি খুব সুন্দর ভাবে বেড়ে উঠেছে জল আর সূর্যালোক পেয়ে।

নবম শ্রেণির যে ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষাটা চালিয়েছে, তাদের আর এক জন ম্যাথিল্ডে নিয়েলসন বলেছেন, ‘এটাই প্রমাণ করেছে, ওয়াইফাই বা মোবাইলের বিকিরণ প্রাণের পক্ষে কতটা বিপজ্জনক। তাই আমাদের পরামর্শ, ঘুমাতে যাওয়ার সময় হয় মোবাইল ফোনটা দূরে রাখুন বা বিছানায় রাখতে হলে সেটাকে বন্ধ করে রাখুন। না হলে তা মস্তিষ্ক বা শরীরের পক্ষে খুব বিপজ্জনক হতে পারে।’

বাংলাদেশি যুবকের সেই মশা নিধন যন্ত্র আবিষ্কার করে

সম্পূর্ণ ভিন্ন ধরনের মশা নিধন যন্ত্র আবিষ্কার করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেয়া বাংলাদেশি যুবক আব্দুল হামিদের সেই যন্ত্র যাচ্ছে বিশ্ব বাজারে। খুব শিগগিররই এটি বিদেশের বাজারে পাওয়া যাবে।

সে লক্ষ্যে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের ভিস্তানা হোটেলের বলরুমে বিভিন্ন কোম্পানির প্রতিনিধি ও দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমের উপস্থিতিতে এটি বাজারজাতকরণের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হয়।

‘ইন্টারন্যাশনাল সাইন্টিফিক ডিসকাশান এন্ড লাউন্সিং অব এ নিউ ইনভেনটেড মসকিটো কিলিং ডিভাইস, মালয়েশিয়া’ শিরোনামের এ অনুষ্ঠানে যন্ত্রের উপকারিতা তুলে ধরেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রেসপিটরি মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. উরম কুমার বড়ুয়া ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. কবিরুল বাশার।

বাংলাদেশি যুবক আব্দুল হামিদের এই যন্ত্রটির নাম দেয়া হয়েছে ‘এইচইসি মসকিটো কিলার’ বা হামিদ ইলেকট্রো-কেমিক্যাল মসকিটো কিলার।

টেলিভিশন উপস্থাপিকা তাজনিম বিনতে ফায়সালের উপস্থাপনায় সেমিনারে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ডা. উরম কুমার বড়ুয়া বলেন, প্রাণঘাতী জিকা ভাইরাস নিয়ে বিশ্ব যখন উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ভুগছে। ঠিক তখনই এ ভাইরাস থেকে নিরাপদে থাকার পন্থা উদ্ভাবন করেছেন বাংলাদেশি হামিদ। ক্ষতিকর মশার কয়েলের পরিবর্তে এটি একই সঙ্গে কার্যকর এবং স্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ।

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার পোপাদিয়া গ্রামের হামিদ উদ্ভাবিত মশক নিধন এ যন্ত্রটি ১৮ মাস সরকারের পর্যবেক্ষণের পর গত বছরের ১০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সরকারের স্বীকৃতি পেয়েছে। চলতি বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সরকারের সর্বশেষ গেজেটে বিষয়টি প্রকাশ হয়েছে। নতুন এ যন্ত্রের নাম দেয়া হয় ‘এইচইসি মসকিটো কিলার’ (হামিদ ইলেকট্রো-কেমিক্যাল মসকিটো কিলার)।